মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

শ্রীপুরে বিধবা নারী তহুরা টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না

খবরের আলো:

মহিউদ্দিন আহমেদ :শ্রীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না তহুরা। অনাহারে অর্ধাহারে থাকা এক বিধবা নারী তহুরা খাতুন (৫৩)। তার নাকের উপর গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়ে পচন ধরা শুরু হয়েছে।বর্তমানে টাকার অভাবে তিনি কোনো চিকিৎসকের কাছে যেতে পারছেন না। তাছাড়া নেয়ার মত কোন লোকজনও নেই। তাই বিনা চিকিৎসায় ধুকছেন অসহায় এই নারী।তহুরা খাতুন গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের হয়দেবপুর গ্রামের মৃত মোনতাজ খানের স্ত্রী।দুই ছেলে ও এক মেয়ের জননী তহুরা। তিন বছর পূর্বে বড় ছেলে মারা যায়। এ যেন মরার উপর খাড়ার গা। অসহায় এতিম নাতিদের নিয়ে পড়েছেন আরো বিপাকে। এক দিকে চিকিৎসা করাতে না পেরে দিন দিন নাকের ক্ষত গভীর হচ্ছে অন্যদিকে নাতিদের বরণ পোষণর চিন্তা। জমি বলতে ভিটা-মাটি ছাড়া আর কিছুই নেই।তহুরা খাতুন জানান, ২০ বছর আগে স্বামী মারা যান। স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে মানুষের বাড়ি বাড়ি কাজ করতে হয়। করোনার এই ক্রান্তিলগ্নে কাজে যেতে পারছেন না বিধবা মহিলাটি। জরাজীর্ণ একটি খোপরি ঘরে একাই থাকেন তিনি। বৃষ্টি আসলেই ঘরের চালার ছিদ্র দিয়ে পড়ে পানি। বৈশাখের এই ঝড়-বৃষ্টির মধ্যে বৃষ্টিতে ভিজে কাটাতে হয় তাকে। তিনি আরো জানান, বিগত দশ বছর আগে তার নাকে ছোট্ট একটি ক্ষতের সৃষ্টি হয়। টাকার অভাবে ঠিকমতো চিকিৎসা না করার কারণে আস্তে আস্তে বড় হয়ে গেছে। তার নাকের অবস্থা খুবই খারাপ তার দ্রুত চিকিৎসার প্রয়োজন। ডাক্তার বলেছেন তাকে তিন মাস হাসপাতালে ভর্তি থাকতে হবে তারপর অপারেশন লাগবে । যার জন্য ব্যয় হতে পারে প্রায় এক লক্ষ টাকা। কিন্তু টাকার অভাবে কোন চিকিৎসা করাতে পারছেন না।তাই দেশের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানান তিনি ।

বার্তা প্রেরক
মহিউদ্দিন আহমেদ
শ্রীপুর প্রতিনিধি
৬/৭/২০ইং

বিধবা তহুরা

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com