শনিবার, ০৯ জানুয়ারী ২০২১, ০২:১২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রাজধানীর মিরপুরে নতুন বছর উদযাপনের বিশেষ আয়োজন এবার ঠাকুরগাঁওয়ে ইট দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুর নির্বাচন আসলে অভিযোগের বাক্স খুলে বসা বিএনপির অভ্যাসগত স্বভাব : তথ্যমন্ত্রী নেতিবাচক কথা ও রাজনীতি থেকে বেরিয়ে বিএনপিকে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার পরামর্শ তথ্যমন্ত্রী’র গঠনমূলক সমালোচনা হচ্ছে ‘বিউটি অব ডেমোক্রেসি’ : তথ্যমন্ত্রী ত্রিশালে পাওয়ার আইটি অর্গানাইজেশনের ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন দারুস সালামে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জায়গা দখলের অভিযোগ বছরের প্রথম দিনই বই পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা আরও ২ বছর প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব থাকছেন ড. আহমদ কায়কাউস বাংলাদেশে ও করোনার নতুন ধরন শনাক্ত

শ্রীপুর পৌরসভার নির্বাচনের সরকারি দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

খবরের আলো :
মহিউদ্দিন আহমেদঃস্টাফ রিপোর্টার
গাজীপুরের শ্রীপুর  পৌরসভার মধ্যে । স্থানীয় সরকারের এই প্রতিষ্ঠানের নির্বাচনের কয়েকমাস বাকী থাকলেও আগাম প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন ক্ষমতাসীন
 দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। তারা একদিকে ভোটারদের মন জয় করতে যেমন দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তেমনি কেন্দ্র থেকে নিজ মনোনয়ন নিশ্চিতেও সচেষ্ট রয়েছেন।
আওয়ামীলীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত শ্রীপুর পৌরসভা ২০০০ সালে গঠনের পর থেকেই আওয়ামী প্রার্থী আনিছুর রহমান জয়ী হয়ে আসছেন। তবে পৌরসভা গঠনের দীর্ঘ ২০বছর অতিবাহিত হলেও কাঙ্খিত উন্নয়ন না হওয়ায় এবার ভিন্ন এক পরিস্থিতিতে ভোট যুদ্ধে ভোটারদের মুখোমুখি হতে পারেন তিনি। বর্তমান মেয়রের ব্যর্থতায় বিকল্প প্রার্থীরা মনোনয়নের আশা দেখছেন। শিল্পকারখানা বেষ্টিত শ্রীপুরে মেয়র প্রার্থী ও ভোটারদের সাথে কথা বলে এমন আভাস পাওয়া গেছে।নির্বাচন অফিসের দেয়া তথ্য মতে, বর্তমান সরকার বিগত ২০০০সালে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে শ্রীপুরকে পৌরসভায় রুপান্তর হয়। এর পর সর্বশেষ তৃতীয় পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় বিগত ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর। নিয়ম অনুযায়ী চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যে এই পৌরসভায় নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সর্বশেষ তালিকা অনুযায়ী এই পৌরসভায় মোট ভোটার ৬৮হাজার ৪৭০জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৪ হাজার ১৯৯জন, মহিলা ৩৪ হাজার২৭১জন। পৌরসভা গঠনের পর ৩টি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সবকটি নির্বাচনে জয়ী হয়ে একাধারে ১৮বছর ধরে এ পৌরসভায় নগরপিতার দায়িত্বে রয়েছেন গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান। এবারও তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী বলে জানিয়েছেন।চতুর্থ পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বেশ কিছু কয়েকবছর ধরেই মাঠে রয়েছেন গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল আলম রবিন। করোনাকালে তিনি পৌর বাসীর পাশে থেকে সহযোগিতা করেছেন। সমাজের অসহায় মানুষের খাদ্য সহায়তা,করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব নিয়ে সবার মধ্যে নিজের অবস্থান তৈরী করে নিয়েছেন তিনি। করোনকালে অসহায়দের পাশে থেকে তিনিও নিজেও করোনায় আক্রান্তও হন।এছাড়াও নির্বাচনের লক্ষ্যে মাঠে নেমেছেন শ্রীপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মন্ডল বুলবুল,গাজীপুর জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক আবুল খায়ের বিএসসি, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি ও কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা হারুনুর রশিদ ফরিদ। এদিকে নির্বাচন নিয়ে প্রার্থীদের মধ্যে বর্তমান সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন সবুজ ও সাবেক প্রয়াত সংসদ সদস্য এডভোকেট রহমত আলীর অনুসারীরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।  মেয়র আনিছুর রহমান বর্তমান সংসদ সদস্যের অনুসারী হিসেবে তারও মনোনয়ন পাওয়ার জোড় সম্ভাবনা রয়েছে।ভোটারদের ভাষ্য অনুযায়ী,শিল্প কারখানার সৌজন্যে ব্যাপক রাজস্ব আয় হয় এ পৌরসভায়। অথচ পৌরসভায় এখনো নাগরিক সুবিদা নিশ্চিত হয়নি। বিশেষ করে পৌর এলাকার রাস্তাঘাটের অবস্থা খুবই শোচনীয়।  জলাবদ্ধতা,ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকা,বর্জ্য ব্যবস্থাপনার অভাবে জনভোগান্তি প্রতিনিয়ত বাড়ছে।সাধারন মানুষ নৌকার প্রার্থীকে বারবার জয়ী করলেও নাগরিকদের কথা ভাবেননি কেউ। ধাপে ধাপে পৌরসভা তৃতীয় থেকে প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত হলেও প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার ছিটেফোটাও নেই এখানে। দক্ষ নগরপিতা না পাওয়ায় অনিয়ম দুর্ণীতির কারনে ভঙ্গুর পৌরসভায় পরিণত  হয়েছে। তাই ভোটাররা নাগরিক সুবিদা নিশ্চিতে এবার তারা দক্ষ প্রশাসক নির্বাচনের লক্ষে আওয়ামী প্রার্থী হিসেবে প্রত্যাশা করেন ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com