সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন

রাজধানী পল্লবী ডিএমপি “৪৬”  তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত

খবরের আলো

কাজী ওবায়দুর রহমান
ভিন্ন রুপ, বাংলাদেশ — ঢাকার অদূরে ( উত্তরে ) বিভাগীয় মিরপুর, যার নাম পুরো ঢাকা জুঁরেই ছড়িয়ে পড়েছে।
এই বৃহত্তর মিরপুরে সাতটি থানা রয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম একটি থানা  ‘ পল্লবী থানা ‘ । ডিএমপি ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্নীল সাজে সেজেছে। প্রতিটি মানুষের সাথে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সাথে পরস্পর মিল মহব্বত ভালোবাসা রয়েছে। ছোট,বড়,গরীব,দুখী অসহায়, সমাজ চেতনা, রাজনীতিবিদ পরিবারদের সাথে সাক্ষাত রয়েছে, যেমন গত ১৩ – ০২ – ২০২১ইং রোজ শনিবার পল্লবী থানার নীজ ভবনে ৪র্থ তলায়  ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিক অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়।
পল্লবী থানায় উদযাপিত অনুষ্ঠানটি সকাল ১০ ঘটিাকা থেকেই বিভিন্ন শ্রেণীর লোকের আনাগোনা ছিলো।উক্ত অনুষ্ঠানটি পল্লবী থানার অফিসার্স ইনচার্জ জনাব,মোঃ কাজী ওয়াজেদ আলীর নেতৃত্বেই সুন্দর ও সুস্ঠ ভাবেই পরিচালিত হয়।
অনুষ্ঠানটি উদ্ভোদন করেন মিরপুর ভিভাগের ডিসি জনাব, আ.স.ম মাহাতাব উদ্দিন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান কালে ডিসি মাহাতাব উদ্দিন বলেন পুলিশিই জনতা,  জনতাই পুলিশ।
পুলিশ জনগণের বন্ধু, কারো একা পক্ষে কোন কাজ করাই সম্ভব নয়। জনগন যদি আমাদের সাথে থাকেন,আমাদের সাহায্য সহযোগিতায় করেন, তা হলেই দেশ সুন্দর সুষ্ঠ ভাবে পরিচালিত হবে,  ” ইনশাআল্লাহ  “।  তিনি আরো বলেন সংবিধান আইন মান্য করা, শৃঙ্খলা রক্ষা করা, নাগরিক দায়িত্ব পালন করা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য। তার পর আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর দায়িত্ব। কোন অপরাধীকেই ছার দেওয়া হবে না এবং আপনারা আশ্রয় দিবেন না। পরিশেষে দেশের সার্ভিক সহযোগিতা একত্রিত থাকার জন্য আহবান জানালেন ডিসি মাহাতাব উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন এডিসি – আরিফুল ইসলাম, এসি মোঃ শাহা কামাল, অফিসার্স ইনচার্জ – মোঃ কাজী ওয়াজেদ আলী, ইন্সপেক্টর তদন্ত মোঃ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন, ইন্সপেক্টর অপারেনশ মোঃ ইয়ামিন কবির সহ্ এস আই মৌসুম।
পল্লবী থানার অফিসার্স ইনচার্জ জনাব কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন , এলাকায় কোন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবন কারি, সন্ত্রাস,চাঁদাবাজ,   থাকতে পারবেনা। তিনি আরো বলেন, যারা ভাড়াটিয়া এবং বাড়িওয়ালা এখনও থানার নিবন্ধন ফরম পূরণ করেন নাই তারা অতি তাড়াতাড়ি ফরম পূরণ করে থানায় জমা দেওয়ার জন্য আহবান জানন। আরো বক্তব্য রাখেন এ সময়ে  পুলিশের অনেক উর্ধতন কর্মকর্তা অফিসার্স বৃন্দ।
এ সময়ে অনেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন,
ঢাকা উত্তরের যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা উত্তর  সিটি কর্পোরেশন ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ তাইজুল ইসলাম চৌধুরী বাপ্পী। ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ সাজ্জাদ হোসেন। বক্তব্য শেষে বেলা ১২ টা ৩০ মিঃ কেক কাটা হয়।  সন্ধ্যা ৭ টায় চলোচিত্রের ওমর সানি,মৌসুমি সহ বিভিন্ন শিল্পিদেরকে দিয়ে এক মনঙ্গ পরিবেশে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিতি ছিলেন ২,৩,৫ নং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মেহেরুন নেসা হক। ৩ নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সভাপতি জনাব,হালিম মজুমদার সহ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী,  সমাজ সেবক,রাজনীতিবিদ ও অন্যান্য নেত্রী বৃন্দ।
সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেনঃ
—————————————-
এস আই – কাওছার (সেকেন্ড অফিসার্স)
এস আই – মিল্টন (ফারীর ইনচার্জ)
এস আই – সজীব এবং এ এস আই মোঃ শফিকুল ইসলাম ও অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com