শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

মুখ দেখে নয়, মানুষ চেনা যাবে হাঁটাচলায়!

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

 

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অনেক প্রযুক্তি আসছে। ফেস আইডি দিয়েও এখন জননিরাপত্তা নিশ্চিত করছে চীন। চীনের রাস্তায় ১৭০ মিলিয়নের বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা ব্যবহৃত হচ্ছে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা নাগরিকদের ওপর নজরদারিতে। এসব ক্যামেরা আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স ফেস রিকগনিশন বা চেহারা শনাক্ত করতে কাজ করে।

তবে ফেস আইডি বা চেহারা শনাক্তকরণ প্রযুক্তি এক জায়গায় ব্যর্থ, আর সেটা হলো কেউ যদি মুখোশ পরে থাকে। এক্ষেত্রে ফেস আইডি নিরাপত্তা দিতে সক্ষম হয়না। তাই এবার চীনের একটি নিরাপত্তা সেবা প্রতিষ্ঠান উদ্ভাবন করেছে যেকোনো মানুষের হাঁটাচলার মাধ্যমেই তাকে দূর থেকে শনাক্ত করার প্রযুক্তি।

চীনের ‘ওয়াট্রিক্স’ নামের প্রতিষ্ঠানটি গবেষণা করে বের করেছে হাঁটাচলার মাধ্যমে মানুষ চেনার এই প্রযুক্তি। অর্থাৎ অপরাধী বা আততায়ী যদি মুখোশ পরেও আসে তবুও তাকে ধরা যাবে। ওয়াট্রিক্সের এই প্রযুক্তির নাম দেয়া হয়েছে ‘গেইট রিকগনিশন’।

ওয়াট্রিক্সের সিইও হুয়াং ইয়াংঝেন বলেন, এই প্রযুক্তি আগে থেকে রেকর্ড থাকা ফুটেজ থেকে সন্দেহভাজন মানুষকে চিহ্নিত করতে পারবে। আর এটার সফলতার হারও ভালো। ১৬৫ ফুট দূর থেকে হাঁটাচলা চিহ্নিত করণের মাধ্যমে কাউকে শনাক্তের সফলতা ৯৪ শতাংশ বলে ওয়াট্রিক্সের সিইও জানান। চীনের পুলিশ ইতিমধ্যেই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। বিশেষ করে বেইজিং এবং সাংহাই ইতিমধ্যেই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। চীনের অন্যান্য প্রদেশও এটা ব্যবহারের পথে আছে। চীনের জিনজিয়ানে মুসলিম সম্প্রদায় উইঘুররা বসবাস করে। সেখানে এটা ব্যবহারের জন্য ভাবা হচ্ছে। কেননা সেখানকার মুসলিমরা কড়া নজরদারির ভেতর থাকে। এটা নিয়ে জাতিসংঘ একটি প্রতিবেদনও দিয়েছে কিন্তু চীন সেটা বরাবরই অস্বীকার করে আসছে। ধরে নেয়া হচ্ছে উইঘুরদের নজরদারির জন্য এটা ব্যবহার করা হবে।

কেউ কেউ বলছেন এই প্রযুক্তি একেবারে নতুন কোনো ধারণা না। জাপান, আমেরিকা এবং ইংল্যান্ডের গবেষকরা এটা নিয়ে আগে থেকেই গবেষণা করে আসছে। তবে চীনই প্রথম এটার ব্যবহারই শুরু করে দিয়েছে। তবে এই প্রযুক্তি কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে কাজ করেনা। অর্থাৎ রিয়েল টাইমে এটা বলে দিতে পারবে না, দূরের লোকটি কে? বরং এটা তার হাঁটাচলা রেকর্ড করে আগে থাকা ফুটেজের সঙ্গে মিলিয়ে বের করে দিবে দূরে কে হাঁটছে? তারপরেও শুধু হাঁটাচলা বা নড়াচড়ার মাধ্যমে লোক চিহ্নিত করার এই প্রযুক্তি অনেক ভাবেই কাজে আসবে। তাই এটা নিয়ে আগ্রহেরও সীমা নেই।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com