শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-দপ্তর সম্পাদক হলেন এইচএম সাইফুল ইসলাম জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার মাধবপুরে সরকারী নগদ অর্থ সহায়তা পাচ্ছে ৩২৮৬৪ পরিবার শ্রীপুরে রুবেলের ছেল মেয়েদের দায়িত্ব নিলেন ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেন অনন্ত ময়মনসিংহের ভালুকায় অটোর-চাকায় ওড়না জড়িয়ে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু মাধবপুরে সরকারিভাবে বোরো ধান সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন বিবাহ বহির্ভূত একাধিক সম্পর্ক ছিল হেফাজত নেতা জাকারিয়ার এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে চেন্নাই গেলেন করোনা আক্রান্ত হাসি ঈদে তাদের ‘টোনাটুনির গল্প’ অভিনেতার সঙ্গে প্রেম, বিয়ে করছেন ব্যবসায়ীকে

মেক্সিকোতে হাজার হাজার নারীকে যৌন পেশায় ঠেলে দিচ্ছে মহামারি

করোনাভাইরাস মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্তের তালিকায় শীর্ষ দেশগুলোর অন্যতম হলো মেক্সিকো। দেশটিতে করোনার কারণে অন্য অনেক পেশার মতো যৌনকর্মীরাও চরম বেকায়দায় পড়েছে।

পরিস্থিতি এতোটাই বিপজ্জনক যে, আগে যে সকল যৌনকর্মীরা হোটেল কিংবা বিভিন্ন ভবনে বিশেষ সম্পর্কের জন্য যেতেন, তারা এখন গাড়ি কিংবা রাস্তার পাশের আড়ালে খদ্দেরের সংস্পর্শে যাচ্ছেন।

ক্লদিয়া নামে এক যৌনকর্মী জানান, প্রায় ১০ বছর আগে এক ব্যক্তির সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। এরপর থেকে খদ্দেরের আশায় রাস্তায় নামিনি। কিন্তু করোনা মহামারিতে আমার স্বামীর চাকরি চলে যাওয়ার পর বাসাভাড়া নিয়েও ভাবনায় পড়তে হয়েছে।

তিনি বলেন, এ পরিস্থিতিতে আমার সামনে কেবল রাস্তায় নেমে আসা ছাড়া উপায় ছিল না। থাকা আর খাওয়ার জন্য এটাই আমাদের একমাত্র পথ ছিল।

তিনি আরো বলেন, সেটাও কিন্তু আমার কাছে সহজ ছিল না। কারণ, গত ১০ বছর ধরে আমি এই লাইনে ছিলাম না। পুরনো খদ্দেরদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই।

লরা নামে আরেক নারী জানান, আগে বেছে বেছে খদ্দেরের সংস্পর্শে গেলেও এখন সেই সুযোগ তেমন একটা থাকছে না। খদ্দের হোটেলে নিয়ে যেতে না রাজি হলে রাস্তার পাশেই বিশেষ সম্পর্কে জড়াতে হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, আমার খদ্দেরদের বেশিরভাগই চাকরি হারিয়ে ফেলেছে। সে কারণে তারা আমাকে অর্থ দিতে পারছে না। এখন অল্প কয়েকজন খদ্দের রয়েছে। পরিস্থিতি এতোটা ভয়াবহ যে, একদিনের খাবার থাকছে তো পরের দিনের জন্য কিছুই থাকছে না।

লরা জানান, এ পেশায় নতুন বহু মুখ দেখা যাচ্ছে। মহামারির কবলে পড়ে তারা রাস্তায় এসে নেমেছে বলে মনে করেন তিনি।

যৌনকর্মীদের নিয়ে কাজ করেন এলভিরা মাদ্রিদ। তিনি বলেন, মেক্সিকো সিটির রাস্তায় ১৫ হাজার দুই শতাধিক যৌনকর্মী কাজ করেন। করোনা মহামারি শুরু হওয়ার আগের তুলনায় এই সংখ্যা দ্বিগুণ।

তিনি আরো বলেন, গলিগুলোতে বহু নারীকে দেখা যাচ্ছে। যারা আগে এসব জায়গায় ছিলেন না। এটা সত্যিই বিস্ময়কর।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com