রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ১২:৪৮ অপরাহ্ন

একটি হুইলচেয়ার চান শারীরিক প্রতিবন্ধী রফিকুল

‘১৯৮৮ সাল থেকে এখানে ভিক্ষা করি। কোনো দিন ১০০ টাকা পাই, কোনো দিন পাই না, বাড়ি যাইতে-আসতে ৪০ টাকা যায় রিকশা ভাড়া। আমার পরিবারে অসুস্থ মা, স্ত্রী, আর মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। তাদের নিয়ে কোনো রকমে দিন চলি। আমার একটি হুইলচেয়ার হলে চলাফেরা করতে পারতাম।’

একটি হুইলচেয়ারের জন্য এমনভাবেই আকুতি জানিয়েছেন কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের ফারাজিপাড়া গ্রামের শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. রফিকুল ইসলাম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ছোটবেলায় জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রফিকুল ইসলামের এক হাত ও এক পা অবশ হয়ে যায়। পরবর্তী সময়ে স্থানীয়ভাবে কবিরাজি চিকিৎসা নিলে কিছুটা সুস্থ হলেও তিনি শারীরিকভাবে এখনো প্রতিবন্ধী রয়ে গেছেন। এরপর কাজকর্ম করতে না পারায় ১৯৮৮ সাল থেকে তিনি বেছে নেন ভিক্ষাবৃত্তি। সেই থেকে তিনি এখনো একই জায়গায় বসে চালিয়ে যাচ্ছেন ভিক্ষাবৃত্তি।

রফিকুল ইসলামের পরিবারে রয়েছেন বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও মানসিক ভারসাম্যহীন একটি মেয়ে। খোলা স্থানে বসে ভিক্ষাবৃত্তি করার সময় ঝড়-বৃষ্টি এলে সেদিন আর তার ভিক্ষাবৃত্তি হয় না। অনাহারে কাটাতে হয় সেই দিন।

 

ঢাকা পোস্টকে রফিকুল ইসলাম বলেন, একটি হুইলচেয়ারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় আবেদন করেছি। কিন্তু আজ পর্যন্ত তা কপালে জুটল না। খোলা আকাশের নিচে ভিক্ষাবৃত্তি করি কুড়িগ্রাম-নাগেশ্বরী মহাসড়কের চণ্ডীপুর বাজার এলাকার ফকিরের তকোয়া নামক স্থানে।

স্থানীয় বাসিন্দা মকবুল হোসেন বলেন, রফিকুল বাড়ি থেকে যাওয়া-আসার জন্য প্রতিদিন রিকশায় ৪০ টাকা খরচ করেন। তাকে যদি কেউ একটি হুইলচেয়ার দিয়ে সহযোগিতা করত, তাহলে তার জন্য ভালো হতো। তিনি আরও বলেন, রফিকুল এখানে আনুমানিক ৩২ বছর ধরে একই স্থানে বসে ভিক্ষা করছেন। যেদিন বৃষ্টি হয়, সেদিন আর তার ভিক্ষা করা হয় না। সব মিলিয়ে তিনি খুব কষ্ট করে চলছেন।

ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের (ইউপি) সদস্য মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, রফিকুল ইসলাম একজন শারীরিক প্রতিবন্ধী। তিনি ভিক্ষাবৃত্তি করেই সংসার চালান। তবে তিনি প্রতিবন্ধী ভাতা পান। তা ছাড়া সরকারি যেকোনো সুযোগ-সুবিধা পেলে তাকে দেওয়ার চেষ্টা করি। ইউনিয়ন পরিষদে হুইলচেয়ারের ব্যবস্থা থাকলে আমরা অবশ্যই দিতাম।

কুড়িগ্রাম প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের সিনিয়র কনসালট্যান্ট মো. আরিফুর ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, রফিকুল ইসলাম নামের ওই ব্যক্তি আমাদের অফিসে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিলে আমরা একটা হুইলচেয়ারের ব্যবস্থা করে দেব।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com