বুধবার, ১২ মে ২০২১, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

মামলা থেকে বাঁচতে ‘আগুনের নাটক’ সাজান তারা

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ছোট সিঙ্গিয়া গ্রামে মামলা থেকে বাঁচতে ‘ রহস্যজনক আগুনের নাটক’ সাজানোর অভিযোগে নারীসহ ১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রোববার (২ মে) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা গুজব ছড়িয়ে অলৌকিক আগুনের নাটক সাজিয়েছিলেন বলে স্বীকার করেছেন। পরে তাদের সবাইকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ছোট সিঙ্গিয়া মুন্সিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সামসুজ্জোহা, এহেতাসাম উল্লাহ, মকসেদুল ইসলাম, ইন্তাজ আলী, দেলোয়ার হোসেন, কফিল উদ্দিন, ওবায়দুল্লাহ, তহিদুর রহমান, আজিম উদ্দীন চৌধুরী, মন্টু আলম, মেহেরুন নেছা ও বিলকিস আক্তার।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও ডিবি পুলিশের পুলিশ পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আকরাম আলী জানান, গত ২৯ এপ্রিল সিঙ্গিয়া মুন্সিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সালেহা বেগমের দায়েরকৃত মামলায় তাদেরকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

মামলার বরাতে তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর সালেহা বেগমের স্বামী মকবুল হোসেনের মৃত্যু হয়। এরপর গ্রামের কিছু মানুষ মকবুল হোসেনের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন প্রকার গুজব রটায় এবং বাদীর পরিবারের লোকজনকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করে। চলতি বছরের ২৮ মার্চ কে বা কারা সালেহা বেগমের চারটি গোয়ালঘর ও দুই বিঘা জমির গমে আগুন দেয়। ৬ এপ্রিল সালেহার চাচা সিরাজ উদ্দিনের খড় রাখার ঘরে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এতে বাদীর পরিবারের পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে মামলায় করা হয়।

মামলার এজাহারে আরও বলা হয়, গত ৮ এপ্রিল দুপুরে প্রতিবেশী ইনতাজ আলীর বাড়ির কাপড় কাঁচার বালতিতে আগুন ধরে- এমন মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে বাদী ও তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন গ্রামের কয়েকজন মানুষ। তবে গ্রামবাসীর কাছে বিষয়গুলো নিয়ে বাদী কথা বললে তারা এই গুজবের সত্যতা দেখাতে পারেনি। এসব ঘটনার পরে ২৯ এপ্রিল সালেহা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে বালিয়াডাঙ্গী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সন্দেহ হলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১২ জনকে আটকের পর তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। এজন্য তদেরকে সালেহা বেগমের দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, সালেহা বেগমের দায়েরকৃত মামলা থেকে বাঁচতে গ্রামে আগুনের সাজানো নাটক সাজানো হয়েছিল। তাদের উদ্দেশে ছিল মানুষের মাঝে ভীতি সৃষ্টি করা এবং সালেহা বেগমের জমি দখল করা।

এ বিষয়ে কোর্ট ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর আলম জানান, ঠাকুরগাঁওয়ের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আরিফুর রহমান গ্রেফতারকৃত ১২ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। সেই সঙ্গে আসামিদের রিমান্ডের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদন করলে আগামী ৬ মে শুনানি দিন ধার্য করা হয়েছে।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com