রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৫ অপরাহ্ন

পল্লবী থানা পুলিশ কর্তৃক অপহরণকারী চক্রের ৫,সদস্য গ্রেফতার।

খবরের আলো 

জাহিদুল ইসলাম:রিপোর্টার,

গত ২৯/০৬/২০২১,ইং তারিখে মো: সানিয়াত মোল্লা(২৮), পিতা-মৃত চাঁদ মোল্লা, মাতা নাসিমা বেগম, সাং- পূর্ব সুজন কাঠি, থানা-আগৈলঝাড়া, জেলা-বরিশাল, এ/ পি- বাসা-০৬, রোড-০৪, ব্লক-ধ, সেকশন-১২, থানা- পল্লবী, ঢাকা পল্লবী থানায় এসে জানান যে, তার ছোট ভাই মো: রাকিব মোল্লা(২৪) কে অগগাত নামা কয়েকজন ব্যক্তি প্রতারণার মাধ্যমে অপহরণ করেছে। তিনি জানান যে, তার ছোট ভাই মোঃ রাকিব মোল্লা, পানির ফিল্টার মেশিনের ব্যবসা করে।  কে বা কারা তার ছোট ভাইকে গত ২২/০৬/২০২১  তারিখ আনুমানিক দুপুর ৩:৩০  ঘটিকায় ফোন করে পানির ফিল্টার লাগবে বললে মোঃ রাকিব মোল্লা(২৪) পরদিন সকাল-৯.০০ঘটিকায় তার পল্লবী থানাধীন বাসা-০৬, রোড-০৪ ব্লক-ধ, সেকশন-১২, বাসা থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পরবর্তীতে অপহরণকারীরা মামলার বাদীকে ফোন করে ১৫,০০,০০০/=( পনের লক্ষ) টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তা না হলে বাদ ছোট ভাইকে প্রাণে মেরে ফেলবে বলে জানায়। বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২৯/০৬/২০২১  তারিখ পল্লবী থানার মামলা নং-৮৮, ধারা-৩৬৫/৩৮৫/৩৪  প্যানেল কোড রুজু করা হয় এবং সাব- ইন্সপেক্টর কাজী রায়হানুর রহমান কে মামলার তদন্তভার অর্পণ করা হয়।

 

 সাব-ইন্সপেক্টর কাজী রায়হানুর রহমান,মামলার তদন্তকালে বাদীর  ছোট ভাই মো: রাকিব মোল্লার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ আরিফুল ইসলাম পিপিএম-সেবা (পল্লবী জন) এবং সহকারী পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শাহ কামাল (পল্লবী জোন) ও জনাব মোঃ পারভেজ ইসলাম পিপিএম (বার), অফিসার ইনচার্জ পল্লবী থানা মহোদয় গণের সহায়তায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে উক্ত মামলার আসামী ১।খন্দকার অলিউল্লাহ৥ মেহেদী৥ রাজু৥ মনির(৪২),পিতা- মৃত খন্দকার রুস্তম আলী, মাতা- মৃত আমেনা বেগম, সাং- মাজবারি, থানা- কালুখালী, জেলা- রাজবাড়ী কে  সাভার থানা দিন ব্যাংক টাউন গেইট এর সামনে থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীতে আসামী ১।খন্দকার অলিউল্লাহ@ মেহেদী৥ রাজু৥ মনিরের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার বর্তমান ঠিকানা বাসা-৯৪/১৩ (৩য় তলা),কর্ণপাড়া, উলাইল,থানা- সাভার, জেলা- ঢাকা থেকে তার ওপর সহযোগী আসামী ২।মো: শফিকুল ইসলাম৥ শিমুল(৩২) পিতা- মো: আফাজ উদ্দিন, মাতা-  মোসা: শিউলি বেগম, সাং- বৌনাকান্দি, থানা-কেরানীগঞ্জ, জেলা-ঢাকা, ৩। মো: খালিকুজ্জামান৥ জামান(২৬), পিতা-মৃত আব্দুল হাই, মাতা-  হাদিসা বেগম, সাং- কোলাপাড়া,মোল্লাবাড়ি, থানা- শ্রীনগর, জেলা- মুন্সিগঞ্জ, ৪। মো: সেলিম আহমেদ(৩১), পিতা- মৃত হাসেম সরদার, মাতা- সেলিনা বেগম, সাং-০৩ নং ওয়ার্ড তুলাষার,থানা- শরীয়তপুর সদর, জেলা- শরীয়তপুর,৫। মো: মেহেদী হাসান৥ আকাশ৥ কালু (২২), পিতা- মো: সেলিম হাওলাদার, মাতা- মোসা: মমতা বেগম,সাং- হলদীবাড়ি,০৪নং ইউনিয়ন, থানা- বরগুনা সদর, জেলা- বরগুনা’দের গ্রেফতার এবং বাদীর ছোট ভাই মোঃ রাকিব মোল্লা (২৪)(ভিকটিম) কে উদ্ধার করা হয়।

 বর্ণিত আসামিদের নিকট জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন যাবত পল্লবী থানা এলাকাসহ ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকার বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তাদের নিকট মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে। ব্যবসায়ীরা যদি চাঁদা দিতে রাজি না হয় তবে উক্ত আসামিরা সুযোগ বুঝে কৌশলে তাদের অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করে।

 ভিকটিমকে আসামিরা কৌশলে সাভারে নিয়ে বিয়ার এবং জুস খাওয়ায়। জস এর ভেতর  নেশাজাতীয় দ্রব্য দিয়ে ভিকটিমকে ঘুম পাড়িয়ে রাখে। আসামিদের দখল থেকে ভিকটিমকে নেশাজাতীয় পানীয়/ খাবারের আলামত উদ্ধার করা হয়। আসামিদের ১০(দশ)দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন সহ বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

 

 

 

 

 

 

     
 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com