বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:২৬ অপরাহ্ন

ট্রাক্টরের ধাক্কায় পঙ্গুত্বের জীবন বয়ে বেড়াচ্ছেন দু’ মোটরসাইকেল আরোহী

মাস্টার শফিকুল ইসলাম, জীবননগর, চুয়াডাঙ্গাঃ
চাষের ট্রাক্টর’র ধাক্কায় জীবনে বেঁচে গেলেও পঙ্গু জীবন যাপন করছেন একই এলাকার দু’জন মটর সাইকেল আরোহী।
জানা গেছে-ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার স্বরুপপুর-কুসুমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কম্পিউটার-কাম-ক্লার্ক মো:তাসলিম কবির (৩৭) গত ০৩-০৯-২০২১ ইং শুক্রবার বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে মটর সাইকেলযোগে জীবননগরের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা দেন।পথিমধ্যে সোনাগাড়ি নামক স্থানে এলে হঠাৎ চাষের জমি থেকে মেইন রোডে উঠে আসা একই গ্রামের ফারুকের ট্রাক্টরের সাথে ধাক্কা লেগে মারাত্মক আহত হন।এ সময় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্যে দ্রুত হাসপাতালে নেন।এ দুর্ঘটনায় তিনি প্রাণে বেঁচে গেলেও এখনো স্বাভাবিক হয়ে উঠতে পারেননি।
ঐ একইভাবে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে দু’বছর যাবৎ পঙ্গুত্ব বরণ করছেন কুসুমপুর ক্যাম্পপাড়ার মো: আনোয়ার হোসেন (৪৫)। তিনি গত ১২-০৯-২০১৯ ইং তারিখে বেলা ৪টা ৩০ মিনিটে মোটর সাইকেলযোগে জীবননগরের উদ্দেশ্যে রওনা দিলে গঙ্গাদাসপুর প্রাইমারি স্কুল পেরোলেই অকস্মাৎ চাষের জমি থেকে উঠে আসা গঙ্গাদাসপুর গ্রামের গোলদারদের ট্রাক্টরের সাথে ধাক্কা লেগে ছিটকে পড়ে গিয়ে মর্মান্তিক জখম হন।এবং তার সাথে থাকা একই গ্রামের জাহাঙ্গীর (৩৫) এর বাম হাত ভেঙে যায়। এমন দুর্ঘটনা এ অঞ্চলে প্রায়-ই শোনা যায়। বিশেষ করে বালি ও মাটি পরিবহনের ট্রাক্টরের আতঙ্কে এ এলাকার মানুস থাকে সারাবছরই আতঙ্কে।
তবে পৃথক এ দু’টি দুর্ঘটনায় একে অপরের প্রতি কোথাও কোন অভিযোগ না করলেও প্রত্যক্ষদর্শী এবং সচেতন মহলে উঠে এসেছে আরোহী ও চালকের জন্যে নানান নির্দেশনার কথা।
তন্মধ্যে -ঝোঁপে ঢাকা নিচু পাশ থেকে রাস্তায় কোন গাড়ি উঠানোর আগে অবশ্যই রাস্তায় একজন দাঁড়িয়ে সিগন্যাল দিতে হবে। এবং রাস্তার পাশে ঝোঁপঝাড় থাকলে গাড়ির গতিবেগ আরোহীকে অবশ্যই নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে।“পথ চলো সাবধানে” নীতি অনুসরণ করতে হবে। মনে রাখতে হবে-একটি দুর্ঘটনা,একটি পরিবারের কান্না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com