সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৫৬ পূর্বাহ্ন

শ্রীপুরে বিদ্যুৎ দেয়ার নামে লাখ টাকা দিয়েও অন্ধকার ঘরে বসবাস ৩৫ টি পরিবারের

খবরের আলো  :

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: বিদ্যুৎ দেয়ার কথা বলে অবৈধভাবে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য অবগত থাকা সত্যেও অভিযোগের ৩ দিনেও তদন্ত করেননি শ্রীপুর থানা প্রশাসন! বিদ্যুৎ পাওয়ার আশা ২ বছর যাবৎ। এখন বিদ্যুৎ নয়, টাকা ফেরত চায় ভুক্তভোগীরা।
সরকারি মাস্টারপ্ল্যানের অন্তর্ভুক্ত বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ অব্যাহত রয়েছে শ্রীপুর উপজেলার টেপিরবাড়ি উত্তরখন্ড গ্রামে। আরও ২ বছর আগে ওই গ্রামের একই জায়গায় বিদ্যুৎ দেয়ার কথা বলে মৃত আহাম্মদ আলীর পুত্র এরশাদুল ইসলাম (৩৫) মিটার প্রতি ১৫ হাজার টাকা করে চুক্তি করেন ওই সময় ১০ হাজার টাকা করে ৩৫ টি মিটার বাবদ ৩৫ জনের থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এই ঘটনার মূল স্বাক্ষী ছিলো স্থানীয় ইউপি সদস্য জয়নাল  আবেদীন (পিউর)। তিঁনি এ ব্যাপারে অভিযুক্ত এরশাদুল ইসলামের শাস্তি দাবী করেছেন।
বিদ্যুৎ সংযোগ প্রার্থীরা জানিয়েছেন,
বিনামূল্যে প্রাপ্য বিদ্যুৎ ১৫ হাজার টাকা চুক্তি করে মিটার প্রতি ১০ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নিয়েছিল এরশাদুল ইসলাম। এখন সরকার কর্তৃক বিনামূল্যেই বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে। আমাদের কে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে প্রতারণা করে
 সাড়ে তিন লাখ টাকা নেয়ায় এখনো আমরা অন্ধকার ঘরে বসবাস করছি! এজন্য তার শাস্তি দাবী করছি! সেইসাথে আমাদের কষ্টার্জিত টাকাগুলো ফেরত চাই! এ ব্যাপারে টেপিরবাড়ি গ্রামের নজর আলীর পুত্র মতিউর রহমান বাদী হয়ে (১৬ নভেম্বর শুক্রবার) শ্রীপুর থানায় অভিযোগ করেছেন। আমরা সকলেই প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি!
এরশাদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগের জন্য তার মুঠোফোনে কল দিলে গত শুক্রবারের মতোই কোনও প্রকার সাড়া পাওয়া যায়নি।
(১৮ নভেম্বর রবিবার)
শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আব্দুর রহমান ‘দৈনিক প্রথম ভোর’ কে জানান, অভিযোগ পেয়েছি আজকে মাত্র! অভিযোগ কারীর সাথে আমার আজ বিকেলে কথা হয়েছে। আগামীকাল আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে সঠিক তথ্য জানাতে পারবো।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com