সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পদ্মা সেতুতে ১ জুলাই সর্বোচ্চ ৩ কোটি ১৬ লাখ টাকা টোল আদায় ‘নওগাঁয় গরুর নাম পদ্মা -সেতু “কোরবানির পশুর হাট কাঁপাবে পদ্মা -সেতু “ শিক্ষককে আটক রেখে খোঁজা হচ্ছিল জুতার মালা আওয়ামী লীগ নেতা মুকুল বোস আর নেই ঈদুল আযহা কে সামনে রেখে রাজশাহীর চৌবাড়িয়ায় জমেছে জমজমাট পশুর হাট  গাজীপুরে দরিদ্র নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করলেন, নারী সংসদ রুমানা আলী টুসি ৬ বছর পর জবি ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণা  নালিতাবাড়ী শহরে অগ্নিকাণ্ডে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি শেরপুরে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্বাচিপ এর ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প ও ত্রাণ বিতরণ পদ্মা সেতু আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখবে ……….লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল

বেড়িবাঁধ ???

ছবি সংগৃহীত।

 
পৃথিবীর সব ভাষা যখন প্রতিদিন শক্তিশালি হচ্ছে, তখন আমাদের প্রাণের ভাষা হচ্ছে দুর্বল।
বিশেষ করে কিছু সবজান্তা গামছাওয়ালা মার্কা তথাকথিত কবি সাহিত্যিক সাংবাদিক ও শিক্ষকদের মৌন সম্মতির কারণে এই বিকৃতি বা ভাঙনকে আরও তরান্বীত করছে। প্রায়ই সংবাদপত্রের পাতায় “ বেড়িবাঁধে”র রিপোর্ট দেখি।
আসলে বেড়িবাঁধ বলতে পৃথিবীতে কিছু নেই। কথাটি হবে বেড়ি অথবা বাঁধ। হয় বেড়ি অথবা বাঁধ যে কোন একটি আপনাকে বেছে নিতে হবে। খেয়াল করলে দেখবেন “বেড়ি” মানেই বাধা দেওয়া, ঠেকানো বা প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা।
আবার বেড়ির শব্দার্থও বাঁধ । তাই যখন আপনি বেড়িবাঁধ লেখেন তখন এর মানেটা দাঁড়ায় “বাঁধবাঁধ”।
২০১৪ সালে এ দেশের শীর্ষ পত্রিকার বাঁধ বিষয়ক একটি রিপোর্টের শিরোনাম ছিলো “ দুই জেলার দুই বেড়িবাঁধ”!!!!
এর আগে ও পরে পত্রিকাটি এরকম ভুল অসংখ্যবার করে আসছে। যা এখনো চলমান। এর আগে ২৬ বছর আগে পত্রিকাটি গ্রেপ্তার বিষয়ক সংবাদে “ গ্রেফতার “ ব্যবহার শুরু করে। এখন এটাকেই মানুষ সঠিক মনে করছে।
আসলে এ ক্ষেত্রে গুণীজনদের কথাই সঠিক। তাঁরা বলেছেন, একটি মিথ্যা কথাকে যদি তুমি ৫বার ১০ বার প্রচার করতেই থাকো তাহলে এক সময় মানুষ সেই মিথ্যাটাকেও সত্যি মনে করবে।
অনেকে হয়তো ভাবছেন “ধান ভানতে শিবের গীত গেয়ে লাভ কি” ? বেড়ি বা শুধু বাঁধ লিখলে কি সরকার আমাদের বাড়ি গাড়ি ফ্রি দিবে ? নাকি বেড়িবাঁধ লিখলে আমাদের চাকরি চলে যাবে ? আসলে কি হবে আর কি হবেনা, এটি মূখ্য নয়। মূল বিষয় হলো যে ভাষার জন্য অসংখ্য মানুষ বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলো সেটা এই বাংলা ভাষাকে কলঙ্কমুক্ত করতে। তাই আপনারও দায়িত্ব রয়েছে বর্তমান ও আগামী প্রজন্মকে প্রাণের ভাষার সঠিক পথটা দেখিয়ে দেওয়া।
 
বিঃদ্রঃ তাই শুধু বেড়িবাঁধ নয়, অজস্র ভুল প্রতিনিয়ত আমরা বলছি, লিখছি এবং অন্যকেও উৎসাহিত করছি। তাই আর কী কী ভুল আমরা করছি বা সেসব আদৌ লেখা ঠিক হবে কি না? তা আজকের এ লেখায় আপনাদের প্রতিক্রীয়া দেখলেই বুঝতে পারবো।
কষ্ট করে এতক্ষণ লেখাটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
সাংবাদিক সজীব আকবর
বার্তা সম্পাদক 
দৈনিক খবরের আলো 
ঢাকা-বাংলাদেশ।
………………………………………………………

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com