রবিবার, ২২ নভেম্বর ২০২০, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ধামরাইয়ে সুয়াপুর ইউনিয়নে ব্রীজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন উপলক্ষে বিশাল জনসভা নাটোরে মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে ৪০ জন আটক মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা

১০ দফা ইশতেহার ঘোষণা করলো জেএসডি

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা দুই মেয়াদে নির্দিষ্ট করাসহ ১০ দফা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন ইশতেহার পাঠ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রবসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।

ইশতেহারের বলা হয়, কেন্দ্রীয় সরকার হবে ফেডারেল পদ্ধতির। যেখানে রাষ্ট্রপতি থাকবেন রাষ্ট্রপ্রধান, সংসদীয় ব্যবস্থা থাকবে, প্রধানমন্ত্রী সরকার প্রধান ও নির্বাহী প্রধান থাকবেন, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার ভারসাম্য আনা হবে। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা দুই মেয়াদে নির্দিষ্ট করা হবে।

অন্য দফাগুলো হলো, নিম্ন কক্ষ ও উচ্চকক্ষ সমন্বয়ে জাতীয় সংসদ গঠন। বাংলাদেশকে ৯টি প্রদেশে গঠন করা, প্রদেশে নির্বাচিত প্রাদেশিক পরিষদ ও প্রাদেশিক সরকার থাকবে। জাতীয় সংসদের উচ্চকক্ষ থেকে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা। স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠন। বিচারবিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা। গণমুখী প্রশাসন গঠন, ব্রিটিশ প্রণীত শাসন শোষণের উদ্দেশ্যে যেসব আইন প্রণয়ন করা হয়েছিল তা বাতিল করে যুগোপযোগী আইন প্রণয়ন করা, ব্রিটিশ প্রণীত প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির কর্মকর্তা ও কর্মচারী অমর্যাদাকর বিভাজন বিলোপ করা, তবে কাজের সুবিধার্থে স্তর বিন্যাস নির্ধারণ করা। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করা, সংবাদপত্র বা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং বাক-স্বাধীনতা নিশ্চিত করা, জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল গঠন করা ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে গতিশীল করার লক্ষে উপ-আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোট গঠন করা।

ইশতেহারে বলা হয়, দেশে ২ কোটি ৩৮ লাখ লোক বেকার, অর্ধ বেকার ৭৯ লাখ, দিন মজুর ২১ লাখ, প্রান্তিক কৃষক ৪ কোটি ও শিশু কিশোর ৭ কোটি, আর কয়েক বছর পর দেশে লোক সংখ্যা দাড়াবে ২৫ কোটি। আর বেকার সংখ্যা দাড়াবে ৬ কোটি। সেসব বিবেচনায় বেকারত্বেও অবসানসহ অর্থনৈতিক রাজনৈতিক ব্যবস্থাপনা না করে ঊন্নয়নের নামে বিপুল অপচয় করা হচ্ছে রাষ্ট্রীয় অর্থনীতিতে।

ইশতেহারে আরও বলা হয়,রাষ্ট্রীয় রাজনীতিতে দেশ পরিচালনার পদ্ধতি এবং রাষ্ট্র কাঠামোর মৌল পরিবর্তন না করতে পারলে আমরা কেবল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থেকে কেবল বিচ্ছিন্ন হতে থাকবো।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com